রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

ফেসবুকে ভাইরাল দম্পতি : লক্ষ্মীপুরের হাবিব স্ত্রীসহ দেশে আসছেন ডিসেম্বরে

জহির উদ্দিন মাহমুদ / ৬৪ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: বুধবার, ২০ অক্টোবর, ২০২১

বাংলাদেশের ছেলে হাবিব এবং বেলারুশের মেয়ে নাতালিয়া। বসবাস করেন জার্মানিতে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দম্পতির সাংসারিক খুনসুটি ও মজার মজার ভিডিও প্রতিদিন দেখছে লাখ লাখ বাংলা ভাষাভাষী মানুষ।

এ দম্পতির পরিচয় ও প্রেমের সম্পর্ক শুরু হয় ২০১২ সাল থেকে। জার্মানির বিখ্যাত ফুটবল ক্লাব বায়ার্ন মিউনিখ স্টেডিয়ামে ‘স্টুডেন্ট জব’ করতে গিয়ে হাবিবের সাথে পরিচয় হয় নাতালিয়ার।

ধীরে ধীরে তা বন্ধুত্ব থেকে প্রেমে রূপ নেয়। অবশেষে ২০১৭ইং সালের ৯ জুলাই তারা বিয়ে করেন। চার বছরের দাম্পত্য জীবনে তাদের পৌনে দুই বছরের একমাত্র ফুটফুটে কন্যা সন্তান নাদিয়া রহমান ও রয়েছে। বর্তমানে কর্মসূত্রে, তারা জার্মানির পূর্বাঞ্চলের সাক্সনি অঙ্গরাজ্যের কেমনিজ শহরে থাকেন।

হাবিবের আত্মীয়-স্বজনরা ঢাকায় থাকলেও তার দেশের গ্রামের বাড়ি লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ উপজলার ভোলাকোট ইউনিয়নের টিউরী গ্রামের মোল্লা বাড়ির মৃত আবদুর রবের ছেলে। বাবার কর্মসূত্রে ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট এবং পড়াশুনা সুত্রে রাজশাহীতে (রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে) কাটে জীবনের বিভিন্ন সময়।

হাবিব ২০১২ সালে জার্মানির টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি অব মিউনিখে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে যান। বর্তমানে পড়াশোনা শেষে জার্মান একটি ইঞ্জিনিয়ারিং কনসালটিং ফার্মে ইন্টারন্যাশনাল প্রজেক্ট ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

অন্যদিকে নাতালিয়ার পরিবার বেলারুশের রাজধানী মিনাস্কের কাছাকাছি শহর বাবরুস্কে থাকলেও তিনি জন্মান চেক রিপাবলিকের রাজধানী প্রাগে। নাতালিয়া ও উচ্চ শিক্ষার জন্য জার্মানি আসেন ২০১০ সালে। মিউনিখের লুডভিগ ম্যাক্সিমিলিয়ান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফার্মাসিতে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়ে বর্তমানে নাতালিয়া একটি কোম্পানিতে ফার্মাসিস্ট হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

২০২০ সালের অক্টোবরের শেষে জার্মানিতে দীর্ঘ লকডাউনের একঘেয়েমী কাটাতে শখের বশেই ‘নাতালিয়া অ্যান্ড হাবিব- দ্য মিক্স ম্যাচ ফ্যামিলি’ নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেইজ খোলেন।

নাতালিয়ার ভাঙ্গা ভাঙ্গা বাংলা বলা ও বাংলা সংস্কৃতির প্রতি ভালোবাসা এবং ছোট্ট নাদিয়ার সরব উপস্থিতিতে অল্পদিনেই তাদের ইউটিউব চ্যানেলটি জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। প্রথম পাঁচ মাসেই পেয়ে যান এক লাখ সাবস্ক্রাইবার ও সিলভার প্লে বাটন এই পর্যন্ত সাবস্ক্রাইবার ৩ লক্ষ ৫০ হাজার এবং পাশাপাশি ফেসবুক পেইজেও ফলোয়ারের সংখ্যা ৯ লাখ এরও বেশি। শুধু ইউটিউবে তাদের ভিডিও এখনও পর্যন্ত দেখা হয়েছে পাঁচ কোটি বার। ফেসবুকে তাদের সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও ৬০ লাখের উপরে এবং প্রতিটি ভিডিও দেখা হয়েছে গড়ে ৫ থেকে ১০ লাখ বার।

হাবিব প্রতিবেদককে জানান, নাতালিয়া ও মেয়ে নাদিয়াকে নিয়ে এখনো বাংলাদেশে আসা হয়নি। ডিসেম্বরে বড়দিনের ছুটিতে তিন সপ্তাহের জন্য বাংলাদেশে আসবো। এরইমধ্যে টিকেট কনফার্ম করে রেখেছি। বাংলাদেশ ভ্রমণ নিয়ে সবার কাছে পরামর্শও চেয়েছি।

নাতালিয়া জানান, বাংলাদেশে হাবিবের পরিবারের সঙ্গে সময় কাটাতে চাই। পাশাপাশি বাংলাদেশের সুন্দর সুন্দর জায়গাগুলো ঘুরে দেখবো।


এই বিভাগের আরো খবর