শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

ভাত খেয়েও ওজন কমানোর কৌশল

রাহিমা আক্তার মুন্নী / ৪৬ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: সোমবার, ৩০ আগস্ট, ২০২১

 

ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে বা ওজন কমাতে গিয়ে সবাই প্রথমে খাদ্য তালিকা থেকে যে খাবারটি বাদ দিয়ে দেন, সেটা হলো ভাত। শহুরে জীবনযাপনে রোগা হতে চাইলে চোখের আড়াল করতে হয় ভাতকে। অধিকাংশের ধারণা, ভাত বেশি খেলে ওজন বেড়ে যায়। কিন্তু আধুনিক পুষ্টিবিজ্ঞান অনেক সময় বলছে, ভাত খেয়েও ওজন নিয়ন্ত্রিত রাখা যায়। যদি কিছু নিয়ম মেনে খাওয়া হয়।

পুষ্টিবিদ এবং স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা প্রায়শই ওজন কমাতে কম ক্যালরি এবং কম চর্বিযুক্ত খাবারের পরামর্শ দেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, সাদা ভাত একটি আঠা-মুক্ত শস্য, যার মধ্যে চর্বি কম থাকে এবং হজম করা সহজ। যা শেষ পর্যন্ত বিপাক ক্রিয়া বাড়ানোর জন্য এটি দুর্দান্ত খাবার এবং যা ওজন কমানোর প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করতে সক্ষম।
ডায়েটে ভাত রাখুন পরিমিত পরিমাণে। ভাতের সঙ্গে শর্করা জাতীয় অন্য পদ বা স্নেহ জাতীয় খাবার খাবেন না। সাদা ভাত ভিটামিন বি এবং ম্যাগনেসিয়ামের মতো ভিটামিন এবং খনিজ সমৃদ্ধ। সাদা ভাত স্বাস্থ্যকর করার জন্য মনে রাখার কয়েকটি উপায় রয়েছে।

লাল চালের ভাত, নাকি সাদা ভাত, কোনটা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী

চালের উচ্চ কার্বোহাইড্রেট কন্টেন্ট পরিত্যাগ করার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো তাদের স্বাস্থ্যকর উপায়ে রান্না করা। আপনি চাল কয়েক ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখতে পারেন তারপর সেদ্ধ করে পানি ফেলে দিতে পারেন। এর ফলে বাড়তি স্টার্চ বেরিয়ে যাবে। সাদা ভাত মানে শুধুই সাদা ভাত। ভাত ভাজা বা ঘি বা তেলের মতো অতিরিক্ত চর্বি যোগ করা এড়িয়ে চলুন। নয়তো এগুলো অতিরিক্ত ক্যালরি যোগ করবে।

খাবার হিসেবে ভাতের পুষ্টিগুণ বাড়ানোর সর্বোত্তম উপায় হলো, একটি ছোট বাটিতে ভাত নিয়ে তার সঙ্গে শাকসবজি যোগ করুন অথবা আপনার ভাতের উপাদেয় খাবার যেমন রাইস সালাদ যোগ করুন।


এই বিভাগের আরো খবর