শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাব ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০২২ পরীমণির বিয়ের মেনুতে কী কী ছিল স্বামী যদি সহবাসে অক্ষম হয়, তাহলে স্ত্রীর কী করা উচিৎ? বি’ব্র’তক’র সা’দাস্রা’ব প্র’তিরো’ধে ক’রণী’য়। প্র’ত্যে’ক মে’য়ে’র জেনে রা’খা প্র’য়োজ’ন লক্ষ্মীপুরে আ. লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদ নিয়ে টানাটানি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে বিয়ে, যা বললেন পরীমনি ভায়াগ্রা নয়, পেঁয়াজ দিয়েই বাড়ান ৩গুণ সেক্স! এবং সহবাসে সঙ্গীকে দিন পরিপূর্ণ তৃপ্তি! শা’রী’রিক মি’ল’নে চ’র’ম আন’ন্দ পে’তে ট্রা’ই ক’রু’ন এই ভ’ঙ্গি’মা সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা ও’ষুধ-ক’নডম ছাড়াই কিভাবে জ’ন্ম নি’য়ন্ত্রণ করা সম্ভব ! বিবা’হিত দম্পতিরা জেনে রাখু’ন
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

চন্দ্রগঞ্জে লোহার গেইটের চাপায় প্রাণ গেল শিশু শ্রমিক সাইমুনের

বিশেষ প্রতিনিধি / ১৭৪ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

চন্দ্রগঞ্জে লোহার গেইটের চাপায় প্রাণ গেল শিশু শ্রমিক সাইমুনের

যে বয়সে সাইমুন এর পড়ালেখা আর খেলার মাঠে খেলার কথা ছিল, শৈশবের সুন্দর দিন গুলো উপভোগ করার কথা ছিল, বন্ধুদের সাথে ফুটবল, হাডুডু, দাড়িয়াবান্ধা, ক্রিটেক বা অন্য যেকোন খেলা খেলার কথা ছিল, আর হলো না !! সেই বয়সেই তাকে হাতে তুলে নিতে হল লোাহার হাতুড়ে।আর সেই লোহার নির্মম আঘাতেই প্রাণ গেল এই প্রাণবন্ত ১৪ বছরের ছোট্ট সাইমুনের।

সাইমুনকে চাপা দেওয়া লোহার গেইট।
ঘটনাটি ঘটেছে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চন্দ্রগঞ্জ থানাধীন চন্দ্রগঞ্জ বাজারে।শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ১:৪৫ঘটিকার সময় চন্দ্রগঞ্জ বাজারের মধ্য বাজারের রোমানা ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপ এন্ড রেন্ট এ-কার নামক প্রতিষ্ঠানে । দোকানের মালিক মোঃ রুবেল সহ অন্যান্যরা বাহিরে কাজ করতে চলে গেলে দোকানে সাইমুন একা থাকে। হঠাৎ তিন মাস আগে তৈরীকৃত বড় আকারের লোহার গেইট বিনা নোটিশে সাইমুনের উপর আছড়ে পড়ে। সাথে সাথে সাইমুনকে ক্ষত বিক্ষত করে ফেলে। পরে উপস্থিত লোকজন শিশুটিকে স্থানীয় ন্যাশনাল হসপিটালে নিয়ে যায়, ঐখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইমুনের অবস্থা দেখে তাকে নোয়াখালীর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করে। নোয়াখালী সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইমুনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

সাইমুন নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ থানাধীন ১নং আমানউল্যাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দের খিল গ্রামের বরইন্নার বাড়ির মোঃ শাহজাহানের ছেলে। শাহজাাহান চন্দ্রগঞ্জ বাজারের গণমিলনায়তনের পাশেই ছোট্ট একটি চায়ের দোকান দেয়। জানতে চাইলে শাহজাহান বলেন ভাগ্যে আল্লাহ যা রাখছে তাই হইছে।আমি ছেলের সাথে ঘটনার সময়ের ৩০ মিনিট আগে কথা বলে আসছি। এবিষয়ে জানতে চাইলে সাইমুনের ওয়ার্কসপের মালিক রুবেল বলেন, বিষয়টি অনাকাঙ্খিতভাবে ঘটে গেছে। আমরা কেউই দোকানে ছিলাম না।এত কম বয়সের বাচ্ছা দোকানে কেন রাখছেন জানতে চাইলে রুবেল কোন উত্তর দেয় নাই।

একটা প্রশ্ন থেকেই যায়,শিশু শ্রমের আইনে এটা কি অপরাধ নয়? দোকান মালিক মোঃ রুবেল কিভাবে মাত্র ১৪ বছর বয়সের একটা বাচ্ছাকে ওয়ার্কসপের মত কঠোর পরিশ্রমের কাজে নিয়োগ দেয়? এই প্রশ্নটা জাতির কাছে থেকেই গেল? স্থানীয় প্রশাসন এবং আইন প্রয়োগকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ কামনা করেন স্থানীয় জনগন।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মমর্তা (ওসি) একে ফজলুল হক এ বিষয়ে বলেন, ঘটনা জানার সাথে সাথে ঘটনা স্থলে ফোর্স পাঠিয়ে দেই। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


এই বিভাগের আরো খবর