শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫২ অপরাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

লক্ষ্মীপুর চররমনীতে অজ্ঞানপার্টির কবলে পড়ে ৫ জন অসুস্থ

বিশেষ প্রতিনিধি / ২২৫ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররমনী মেহন  ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে একই পরিবারের ৪ জন অসুস্থ হয়েছেন।

এরা হলেন-বাড়ির মালিক নুরনবী (৬০), তার স্ত্রী জাহানারা বেগম (৫৫), ছেলে দেলোয়ার হোসেন, নাতনী সুমাইয়া আক্তার মিতু (১৪) ও নাতি মেহেদী (৬) ও কন্যার জামতা বাবুল সৈয়াল (৪৮)।

শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাদের লক্ষ্মীপুর সদর  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেলে দুইজন মহিলা নিজেদেরকে পার্শ্ববর্তী বাড়ির বাসিন্দা  পরিচয় দিয়ে নূরনবীর ঘরে ঢোকেন।

এসময় তারা পানি খাওয়ার কথা  বলে পানির কলসির কাছ গিয়ে পানি ঢেলে খায়। পরে পানও খেয়েছে। এ দিন গৃহকর্তার ছেলে নতুন ঘর করবে রাজমিস্ত্রিকে দাওয়াত করে। রাতে খাওয়ার আয়োজন করা হয়। খাবারের আগে কোনো এক সুযোগে খাবারের সঙ্গে তরল চেতনানাশক দ্রব্য মিশিয়ে দেন বলে ভূক্তভোগিরা জানান।

রাতে খাওয়ার পর ঘরের ৫ জন অসুস্থ হয়ে পড়লে তারা দ্রুত ঘুমিয়ে পড়ে। পরদিন ভোরে ঘুম থেকে জেগে দেখে ঘরের দরজা খোলা। দুর্বৃত্তরা রাতের কোন এক সময় নূরনবীর ঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্ণ অলঙ্কার নিয়ে চলে যায়।

প্রত্যক্ষদর্শী পাশের ঘরের বাসিন্দা ফাহিমা আক্তার জানান, সকালে নূরনবীদের ঘরের দরজা খোলা কাউকে না দেখে ঘরে ঢুকে ডাকাডাকি করলেও কোন সাড়া না পেয়ে কাছে গিয়ে দেখি সবাই অচেতন হয়ে বিছানায় পড়ে আছে। শৌরচিৎকার দিলে আশেপাশের লোকজন এসে জড়ো হয় বলে তিনি জানান।

গৃহকর্তা নূরনবী, ছেলে দেলোয়ার মুন্সী ও কন্যার জামতা বাবুল সৈয়ালকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা  চিকিৎসাধীন। নূরনবী ও দেলোয়ার মুন্সীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

দেলোয়ার মুন্সী জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে পার্শ্ববর্তী বাড়ীর বাসিন্দা সহিদের স্ত্রী কুলসূমা ও হাসন আলী চৌকিদারের স্ত্রী রসিতন পানি খেতে আমাদের ঘরে ঢুকে তারা নিজ হাতে কলসি থেকে পানি নিয়ে খায় এবং পান খেয়ে ঘরে কতক্ষণ ঘুরাফেরা করে চলে যায়। সন্ধ্যার পর রাতের খাবার খেয়ে আমরা সবাই অচেতন হয়ে পড়ি। এ সুযোগে ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে যায়।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জসিম উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। ঘটনার বিষয়ে খোজখবর নিচ্ছেন বলে তিনি নিশ্চিত করেন।


এই বিভাগের আরো খবর