শিরোনাম:
লক্ষ্মীপুর প্রেসক্লাব ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০২২ পরীমণির বিয়ের মেনুতে কী কী ছিল স্বামী যদি সহবাসে অক্ষম হয়, তাহলে স্ত্রীর কী করা উচিৎ? বি’ব্র’তক’র সা’দাস্রা’ব প্র’তিরো’ধে ক’রণী’য়। প্র’ত্যে’ক মে’য়ে’র জেনে রা’খা প্র’য়োজ’ন লক্ষ্মীপুরে আ. লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদ নিয়ে টানাটানি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে বিয়ে, যা বললেন পরীমনি ভায়াগ্রা নয়, পেঁয়াজ দিয়েই বাড়ান ৩গুণ সেক্স! এবং সহবাসে সঙ্গীকে দিন পরিপূর্ণ তৃপ্তি! শা’রী’রিক মি’ল’নে চ’র’ম আন’ন্দ পে’তে ট্রা’ই ক’রু’ন এই ভ’ঙ্গি’মা সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা ও’ষুধ-ক’নডম ছাড়াই কিভাবে জ’ন্ম নি’য়ন্ত্রণ করা সম্ভব ! বিবা’হিত দম্পতিরা জেনে রাখু’ন
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

সন্ধ্যা নামলেই ভূতের ভয়, গ্রামছাড়া ১৬ পরিবার

বিশেষ প্রতিনিধি / ৩৮০ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০

সন্ধ্যা নামলেই ভূতের ভয়, গ্রামছাড়া ১৬ পরিবার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

প্রতিদিন সন্ধ্যা নামলেই ভূতের ভয় তাড়া করে পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়ার চালিবাড়ী ডিহিপাড়া গ্রামের বাসিন্দাদের। এই ভয়ে একের পর এক গ্রাম ছাড়তে শুরু করে তারা। এ পরিস্থিতিতে পুরো গ্রামটি এখন প্রায় জনশূন্য হয়ে পড়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া শহর থেকে ১৬ কিলোমিটার দূরে চালিবাড়ী ডিহিপাড়া গ্রামের অবস্থান। গ্রামটিতে এক সময় ১৬ থেকে ১৭টি পরিবার বাস করতো। তাদের জীবন-জীবিকাও ছিল খুবই সাধারণ। কিন্তু এক রাতের ঘটনায় গ্রামটির পুরো চেহারা বদলে যায়।

প্রায় চার বছর আগের ঘটনা। ওই গ্রামে এক যুবক খুন হয়। এরপর থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যা নামলেই ভূতের আতঙ্ক তাড়া করতে থাকে গ্রামটির বাসিন্দাদের। ঘরবাড়ি ফেলে গ্রাম ছাড়তে থাকে একের পর এক পরিবার।

পরে প্রশাসনের উদ্যোগ ও আশ্বাসে দু-একটি পরিবার ফিরে আসলেও বাকিরা আর ফেরেনি। এদিকে যারা ফিরে এসেছেন তাদের মধ্যে এখনও আতঙ্ক বিরাজ করছে। আতঙ্ক নিয়েই গ্রামটিতে বসবাস করছে তারা।

ফিরে আসা পরিবারগুলোর দাবি, গ্রামটি ব্যাপারে প্রশাসনের দৃষ্টি রয়েছে। তবে আরেকটু উদ্যোগ নিলে বাকি পরিবারগুলোও ফিরে আসতে পারে। এদিকে ওই গ্রামে আজও বিদ্যুৎ পৌঁছায়নি। রাস্তা-ঘাট কাঁচা, পাকা বাড়িও তেমন নেই। ধ্বংসস্তুপের মতো পড়ে আছে কয়েকটি বাড়ি। সবমিলিয়ে গ্রামটিতে এখনও ভূতুড়ে পরিবেশ বিরাজ করছে।


এই বিভাগের আরো খবর