শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

৫০ বছরেও অনার্স কোর্স আর ছাত্রাবাস হয়নি রায়পুর সরকারি কলেজে 

প্রতিবেদক: / ৩৩৭ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: মঙ্গলবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

৫০ বছরেও অনার্স কোর্স আর ছাত্রাবাস হয়নি রায়পুর সরকারি কলেজে

মেঘনা-ডাকাতিয়া বিধৌত রায়পুর উপজেলা ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সাধারণ মানুষের উচ্চ শিক্ষার পথ সুগম করার উদ্দেশ্যে উপজলে সদর হতে ১কিঃমিঃ দুরে রায়পুর-পানপাড়া সড়কের পাশে নাগরিক কোলাহল মুক্ত প্রকৃতির অনাবিল সবুজ-ছায়াঘেরা শান্ত ও উপভোগ্য পরিবেশে ১৯৭০ সালে রায়পুর সরকারি ডিগ্রি কলেজ প্রতিষ্ঠা হয়। রায়পুরের জমিদার মিয়া পরিবারের দানকৃত ১৪ একর জমিতে গড়ে উঠেছে একাডেমিক ও প্রশাসনিক ভবন আর সুবিশাল খেলার মাঠ। ১৯৮৭ সালে জাতীয়করণ করা হয়।

কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক ও পাসকোর্সে বর্তমানে প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে  নানা কারনে এই কলেজের ফলাফলে অবনতি ঘটলেও কলেজের পূর্বের ইতিহাস উজ্জ্বল। প্রতিবছর এ কলেজ থেকে এইচএসসি শেষ করে বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী সম্মান শ্রেনিতে ভর্তি হতে লক্ষ্মীপুর কিংবা চাঁদপুরসহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পাড়ি জমায়।

রায়পুরে শুধু রায়পুর সরকারি কলেজই না, রায়পুরে রয়েছে মহিলা কলেজ, রুস্তমআলি কলেজ, হায়দরগঞ্জ মডেল কলেজ, কাজি ফারুকি কলেজ। কলেজগুলোর কোনটিতেই সম্মান শ্রেণি চালু has নেই। রায়পুরের এসব কলেজ থেকে প্রতি বছর আরো শত শত শিক্ষার্থী পাশ করে উচ্চ শিক্ষার জন্য রাজধানী বা পার্শ্ববর্তি শহরগুলোতে ভীড় জমায়। সীমিত আসনের জন্য অধিকাংশ ছাত্র-ছাত্রীই সম্মান শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেনা। আবার অনেকে পছন্দের সাবজেক্ট পায়না। এভাবেই বহু শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।

উচ্চ শিক্ষার সুযোগ না থাকায় অনেক মেধাবি ঝরে যাচ্ছে। ছেলেরা পাড়ি জমায় বিদেশে আর মেয়েরা বসতে হচ্ছে বিয়ের পিড়িতে। এখানে সম্মান শ্রেনি চালু হলে রায়পুরে শিক্ষায় আরো এক ধাপ এগিয়ে যেতে পারে।


এই বিভাগের আরো খবর