বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:২০ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

লক্ষ্মীপুরে নির্যাতিত স্ত্রীর স্বামীর গ্রেপ্তার দাবী

বিশেষ প্রতিনিধি / ১২১ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শনিবার, ২ অক্টোবর, ২০২১

 

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় নারী নির্যাতন মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি তোফায়েল আহাম্মদ নামের এক অত্যাচারী স্বামীকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে নির্যাতিত স্ত্রী।

শনিবার দুপুরে গণমাধ্যমে কর্মীদের উপস্থিতিতে অসহায় নির্যাতিত নারী তিন অবুঝ সন্তানকে সাথে নিয়ে স্বামীকে গ্রেফতার করে সঠিক বিচারের দাবিতে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

ভুক্তভোগী ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররমনী মোহন ইউনিয়নের গোলদারকান্দি গ্রামের অসহায় নুরুল ইসলামের মেয়ে ঝর্ণা আক্তারকে প্রায় ১৩ বছর আগে পরিবারিকভাবে বিয়ে করেন একই গ্রামের আবদুল মতলবের ছেলে তোফায়েল আহম্মদ। বিয়ের পর তাদের সংসারে দুই ছেলে ও এক মেয়ে জন্ম হয়। তোফায়েল বিভিন্ন সময় যৌতুকের দাবিতে ঝর্ণা আক্তারকে শারীরিকভাবে নির্যাতন চালিয়ে আসছে। ঝর্ণার পরিবার গরীব হওয়ায় যৌতুকের টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় তার উপর আরো নির্যাতনের মাত্রা বেড়ে যায়। এক পর্যায়ে যৌতুক না পেয়ে তোফায়েল ঝর্ণাকে নির্যাতন করে তিন সন্তানসহ তার বাড়ী থেকে বের করে দেয়। নিরুপায় হয়ে ঝর্ণা সন্তানদের নিয়ে তার নিন্মবিত্ত বাবার বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এরপর থেকে তোফায়েল তার স্ত্রী ও সন্তানদের সাথে সকল যোগাযোগ রক্ষা বন্ধ করে দেন। এতে করে ঝর্ণা অর্থভাবে তার তিন সন্তান নিয়ে অর্ধহারে দিন কাটাচ্ছেন। ঝর্ণা আক্তার বাদি হয়ে লক্ষ্মীপুর আদালতে যৌতুক ও নারী-শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করেন। নারী শিশু মামলা নং ২৭০/২১ইং। দীর্ঘ তদন্ত শেষে প্রতিবেদন জমা হওয়ার পর আদালত তোফায়েল কে গ্রেফতারের জন্য ওয়ারেন্ট প্রদান করে লক্ষ্মীপুর সদর থানা পুলিশের কাছে পাঠান। কিন্তু ওয়ারেন্ট বের হলেও তোফায়েল গ্রেপ্তার হয়নি।

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী ঝর্ণা আক্তার বলেন, ‘সমাজে দূর্বল লোকের কোন দাম নেই। শক্তিশালী না হলে সঠিক বিচার পাওয়া যায় না। আমার স্বামী তোফায়েল আহম্মদের বিরুদ্ধে ওয়ারেন্ট বের হলো অথচ থানা পুলিশ তাকে ধরছে না। আমরা তার দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাই।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি জসিম উদ্দীন বলেন, তোফায়েলকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যহত রয়েছে।


এই বিভাগের আরো খবর