বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:৩২ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

কলাপাড়ায় ১ জেলেকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ নৌ- পুলিশের বিরুদ্ধে”

পটুয়াখালী প্রতিনিধি / ৫৩ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

কলাপাড়ায় ১ জেলেকে পিটিয়ে মারার অভিযোগ নৌ- পুলিশের বিরুদ্ধে”

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের চর বালিয়াতলী গ্রামে সুজন হাওলাদার (৩২), নামে এক জেলেকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগের ঘটনা নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় চলছে।

ঘটনাটি (২১-সেপ্টেম্বর-২০২১ ইং) তারিখ মঙ্গলবার দুপুর আনুমানিক ১১ টার দিকে বালিয়াতলী ইউনিয়নের ছোট ঢোস গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই এলাকায় শতাধিক জেলেরা অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের অবরুদ্ধ করে রাখে। নিহত সুজন হাওলাদর উপজেলার বালিয়াতলী ইউনিয়নের চর বালিয়াতলী গ্রামের বাসিন্দা সত্তার হাওলাদরের ছেলে।

এবিষয়ে কলাপাড়া থানার পুলিশ উপ-পরিদর্শক শওকত জাহান মুঠোফোনে বলেন’ তিনি ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন প্রচুর ঝামেলার মধ্যে তথ্য দেয়া যাবে না । স্থানীয় প্রতিনিধির পাঠানো তথ্যের ভিত্তিতে জানাগেছে, বিকেল ৪ টার দিকে তার লাশ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে । বর্তমানে ওই এলাকায় জেলে ও সাধারন মানুষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।
স্থানীয়দের সূত্রে জানা গেছে, বেলা আনুমানিক ১১ টার সময়,ছোট ঢোস এলাকার নদীতে মাছ শিকারের প্রস্তুতির সময় নৌ-পুলিশের ভয়ে নিজ বাড়িতে লুকিয়ে থাকলে তাকে খুজতে নৌ-পুলিশের ৫ জন সদস্য বাড়িতে ডুলে সুজনকে মারধর করে এতে সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। এসময় অন্য জেলেরা তাকে উদ্ধার করে কলাপাড়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে বাবলাতলা বাজার এলাকায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যু খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শতশত জেলে ও স্থানীয় মানুষ প্রতিবাদ বিক্ষোভে ফেটে পড়ে । এক পর্যায়ে এলাকাবাসী পুলিশের উপ-পরিদর্শক মামুন সহ চার পুলিশ সদস্যদের অবরুদ্ধ করে রাখে ।

এ ব্যাপারে স্থানীয় জেলে আবুল হোসেন, বেল্লাল ও আবু সুফিয়ান জানান,নদীতে মাছ শিকার করতে পুলিশকে মাসোয়ারা দিতে হয়। মাসোয়ারা না দেয়ায় সুজনকে এলোপাথাড়ি ভাবে মারধর করে। স্থানীয় জেলেরা লালুয়া নৌ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ উপ-পরিদর্শক মামুনকে এ ঘটনার জন্য দায়ী করেছেন।

অভিযুক্তপুলিশ উপ-পরিদর্শক মো.মামুন জানান, তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহত জেলে সুজন হাওলাদারকে জালের উপর শুয়ে থাকা অবস্থায় দেখেছেন। কোন পুলিশ সদস্য তাকে মারধর করেনি বলে জানান।

এ ব্যাপারে ওসি তদন্ত আসাদুর রহমান জানান, লাশ ময়না তদন্ত রিপোর্টের পর প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করা যাবে এবং আইনি পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।


এই বিভাগের আরো খবর