বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

কাল সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ দিবস পালন যেভাবে

বিশেষ প্রতিনিধি / ১৪৫ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১

কাল সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ দিবস পালন যেভাবে

আগামীকাল ২১ ফেব্রুয়ারি শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যথাযথ মর্যাদায় দিবসটি পালন করতে হবে। এ পরিস্থিতে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনের নির্দেশ দিয়েছে সরকার। দেশের প্রায় ৪০ হাজার স্কুল-কলেজ ও ৬৫ হাজারের বেশি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দিবসটি পালনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। দিবসটি পালনে সব স্কুল-কলেজকে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ছড়াপাঠ, কবিতা পাঠ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে হবে। আর প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে জাতীয় কর্মসূচির সাথে সঙ্গতি রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে স্ব স্ব কর্মসূচি প্রণয়ন করে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করতে হবে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর ও প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে দিবসটি পালনের নির্দেশনা দিয়ে ইতোমধ্যে আলাদা আলাদা আদেশ জারি করা হয়েছে।

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে স্কুল-কলেজগুলোতে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়েছে, ২১ ফেব্রুয়ারি সব সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সঠিক নিয়মে, সঠিক রং ও মাপের জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখতে হবে। সুর্যোদয়ের সময় পতাকা উত্তোলন করতে হবে এবং সূর্যাস্তের সময় তা নামাতে হবে। পতাকা অর্ধনমিত রাখতে সঠিক নিয়ম অনুসরণ করতে হবে। পতাকার সঠিক মাপ ও উত্তোলনের নিয়ম মেনে পতাকা অর্ধনমিত রাখতে হবে।

দিবসটি পালনে জাতীয় কর্মসূচির সাথে সংগতি রেখে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে দিবসটি উদযাপনে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সব জেলা-উপজেলা সদরে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে যথাযোগ্য মর্যাদায় দিবসটি পালনের জাতীয় কর্মসূচির সাথে সংগতি রেখে স্ব স্ব কর্মসূচি প্রণয়ন করবে। সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে সর্বোচ্চ ৫জন শিক্ষক-শিক্ষার্থীকে এসব কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে বলা হয়েছে। শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে উপলক্ষ্যে সব স্কুল-কলেজকে শিক্ষার্থীদের নিয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, ছড়া পাঠ, কবিতা পাঠ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে হবে।

এদিকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে সব প্রাইমারি স্কুলগুলোকে দেয়া নির্দেশনায়ও দিবসটি পালনে জাতীয় পতাকা যথাযথভাবে অর্ধনমিত রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়া নির্দেশনা অনুসারে, প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে ৫ জনের সমন্বয়ে পুস্পস্তাবক অর্পণ নিশ্চিত করতে হবে। যেখানে শহীদ মিনার নেই সেসব স্কুলের পক্ষ থেকে স্থানীয় প্রশাসনের অনুষ্ঠানে পুস্পস্তাবক অর্পণ করতে হবে।

দিবসটি পালনে জাতীয় কর্মসূচির সাথে সংগতি রেখে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পিটিআইয়ে দিবসটি পালনের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মাধ্যমে তথ্য অফিস থেকে পোস্টার সংগ্রহ করে তা বিতরণ ও প্রাইমারি স্কুলগুলোতে সাঁটানোর ব্যবস্থা করতে হবে।


এই বিভাগের আরো খবর