বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন
বিজ্ঞপ্তি:
পরীক্ষামূলক সম্প্রচার...

রায়পুরে প্রেমিককে ডেকে নিয়ে মারধরের অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধি / ২৯০ পড়া হয়েছে:
প্রকাশের সময়: শুক্রবার, ৬ নভেম্বর, ২০২০

রায়পুরে প্রেমিককে ডেকে নিয়ে মারধরের অভিযোগ

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

লক্ষ্মীপুর রায়পুরে প্রেমিক রাছেলকে বিয়ের কথা বলে
বাড়ীতে ডেকে নিয়ে মারধরের অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকা আয়েশা আক্তার সহ পরিবারের বিরুদ্ধে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনারস্থল থেকে উদ্ধার করে রাছেলকে। বর্তমানে পুলিশ হেফাজতে আছে।

বৃহস্পতিবার (০৫ নভেম্বর) রাত ৮ ঘটিকায় লক্ষ্মীপুর রায়পুরের দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মিয়ারহাট এলাকায় আবদুল গাজীর বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে জানা যায়, রায়পুরের দক্ষিণ চরবংশী ইউনিয়নের মিয়ারহাট এলাকার বাসিন্দা আবদুল গাজীর মেয়ের সাথে চরকাছিয়া গ্রামের সিরাজের ছেলের সাথে প্রেমঘটিত সম্পর্ক রয়েছে। সে সুত্র ধরে প্রেমিক আয়েশা ঘটনারদিন রাতে রাছেলকে বিয়ের কথা বলে তাকে বাড়ীতে ডেকে আনে।

অভিযোগ রয়েছে মেয়ের পরিবারের লোকজন ছেলটিকে বেদম মারধর করে। এ ঘটনার ১৫/১৬দিন আগে ওই ছেলেকে আটক করে পঞ্চাশ হাজার টাকা আদায় করে ছেড়ে দেয় মেয়েটির পরিবার।

টাকা আদায়ের বিষয়টি স্বীকার করে আবদুল গাজী জানান, ছেলেটির
কারণে আমার মান সম্মান ক্ষুন্ন হচ্ছে। রাতে সে আমার বাড়ীতে এসে
মেয়ে বিয়ে না দিলে গলায় ফাঁস দেওয়ার হুমকি দেয়। মেয়ে বিবাহ না দেওয়ার
সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে তিনি বলেন এ ঘটনার মিমাংসা না হলে ছেলেটির
বিরুদ্ধে মামলা করবেন বলে জানান। তবে মারধরের বিষয়টি তিনি আস্বীকার করেন।

ছেলেটির বড় ভাই মোঃ রুবেল জানান, আমার ভাই রাছেলের সাথে দীর্ঘদিনের প্রেম ঘটিত সম্পর্ক রয়েছে আয়েশা আক্তারের । সে বিভিন্ন সময় বিয়ের কথা বলে আমার ভাইকে ডেকে নিয়ে টাকা আদায় করেছে। এর আগে পঞ্চাশ হাজার টাকা আদায় করেছে। ঘটনারদিন সে আমার ভাইকে বিয়ের কথা বলে ডেকে নিয়ে বেদম মারধর করেছে। তাকে আটক করে পূর্বের ন্যায় টাকা আদায়ের চেষ্টা চালাচ্ছে। তিনি ন্যায় বিচার দাবী জানালেন।

স্থানীয়রা জানান, প্রেমঘটিত সম্পর্কের কারণে ছেলে মেয়ে দু’জনই বিয়েতে রাজি থাকায় একাধিকার এ ধরণের ঘটনা ঘটছে। জরিমানা আদায়
করে সমস্যার সমাধান নয়। সমাজে বিশৃঙ্খল এড়াতে দুই পরিবার মিলে
স্থায়ীভাবে এর সমাধান করা জরুরী বলে তারা মন্তব্য করেন।

রায়পুর হাজিরমারা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ ইউসুফ ঘটনার বিষয়
নিশ্চিত করে জানান, রাতে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে রাছেলকে উদ্ধার করে
এনেছি। বর্তমানে সে থানায় হেফাজতে আছে।


এই বিভাগের আরো খবর